একরামুল হক মুন্সী নির্ভীক এক গুনান্বিত সাংবাদিক

জুড়ান চন্দ্র মন্ডল: অতি কাছ থেকে দেখা বস্তুুনিষ্ঠ সত্য আহরনে ছুটে চলা নির্ভীক অকুতভয় একজন কলম সৈনিক। গ্রামগঞ্জের তথা তৃনমূল পর্যায়ে অনাহারী মা-শিশুর করুন আর্তনাদের কথা,মা-বোনের চরম নির্যাতনের কথা, খুনী, চোর,ডাকাত,সন্ত্রাস,চাল,গম চোর মেম্বর চেয়ারম্যান সহ টেন্ডার চুরি,খাদ্য দপ্তর লোপাট,প্রশাসনের কর্মকান্ড, গ্রাম্য শালিস কর্তাদের মূখোশ উন্মোচন, বিভিন্ন দপ্তরের অশুভ আচরনের তথ্য এবং গুনী মানুষের কৃতীত্ব ও গুনাবলী নিয়ে সংবাদপত্রের মাধ্যমে সর্বত্র পৌছে দেন তারাই তো সাংবাদিক। আমরা গনমাধ্যম থেকে জানতে পাই দৃঢ়চেতা সাংবাদিকদের গুনাবলী। যেমন- নাইম নিজাম, আবেদ খান, মানিক মিঞা, ইমদাদুল হক মিলন, আঃ গফ্ফার চৌধুরী সহ নামি দামী সাংবাদিকদের। কিন্তু গ্রাম গঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মফ্স্বল সাংবাদিক যারা অবহেলিত জনপদের সংবাদ সংগ্রহ করেন, নানা কুৎসা ও প্রতিবন্ধকতার শিকার হতে হয়, প্রভাবশালীদের হুমকির শিকার হয়ে ও যারা জীবনের ঝুকি নিয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ এমনই একজন গ্রামীন জনপদের সাংবাদিক’ কে নিয়ে আজকের লেখাটি-

তিনি মোঃ একরামুল হক মুন্সী। একরামুল হক মুন্সী দৈনিক আমার দেশ, দৈনিক ইনকিলাব, দৈনিক দিনকাল, দৈনিক খবরপত্র, দৈনিক আমাদের নতুন সময়, দৈনিক প্রকৃতির সংবাদ, দৈনিক আমার বার্তাসহ অনেক
পত্র- পত্রিকায় দৃঢ়তার সাথে প্রতিনিধিত্ব কওে আসছেন। তিনি পাক্ষিক“ চিতলমারীর অন্তরালে” রেজি -কেএন-৪৯৪ পত্রিকা এর সম্পাদও প্রকাশক, সাহিত্যেতরি “রাতপোহাতে কতদেরি উপণ্যসের প্রকাশক” অনলাইন টেলিভিশন(পরিক্ষামূলক) ঝর্ণা টিভি (জেটিভির) পরিচালক।এছাড়া সহ-সভাপতি বাংলাদেশ ন্যাশনাল নিউজ ক্লাব ঢাকা। প্রচার ও গনসংযোগ সচিব (সাবেক) বাংলাদেশ প্রেসক্লাব ফেডারেশন ঢাকা।

পরিচালক খুলনা বিভাগ, এশিয়া ছিন্নমূল মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন। যুগ্ম -সম্পাদক তথ্য বাংলা ফাউন্ডেশন ঢাকা। সভাপতি জাতীয় সাংবাদিক কল্যান সংস্থা চিতলমারী উপজেলা (সাবেক) । সহ-সভাপতি খুলনা বিভাগীয় রিপোটার্স ক্লাব খুলনা।সভাপতি উপজেলা প্রেসক্লাব চিতলমারী। চিতলমারী উপজেলা আইনশৃঙ্খলা উন্নয়ন কমিটির সদস্য(সাবেক) ,

সাংবাদিকতায় প্রশিক্ষন ও সনদপ্রাপ্ত। ২০০২ সালে রূপান্তর ও বাগেরহাট প্রেস ক্লাব আয়োজিত প্রশিক্ষন অংশগ্রহনে সনদ প্রাপ্ত। ২০১১ সালে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পি, আই, বি) কর্তৃক প্রশিক্ষনের সনদ প্রাপ্ত এবং ম্যাচলাইন মিডিয়া কর্তৃক প্রশিক্ষনের সদন প্রাপ্ত ও জাতিয় পর্যায়ে সাংবাদিকতা ও বিভিন্ন বিষয়ে অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ এক ডর্জনাধিক ক্রেস্ট ও গুণীজন সম্মাননা পত্রে ভূষিত হয়েছেন।

উপরোক্ত কৃতিত্ব জয়ী সাংবাদিক একরামূল হক মুন্সি ১ মার্চ ১৯৬১ সালে বাগেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার আড়–য়াবর্নী গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুন্সী বাড়ীতে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা- মরহুমঃ মোকছেদুল মুন্সী, মাতা-মরহুমাঃ চাঁদ বিবি, সহধর্মিনী মিসেসঃ ঝর্ণা একরাম। বর্তমান তারা দুই পুত্র ও দুই কন্যা সন্তানের জনক ও জননী।
কৃতজ্ঞতা শিকারঃ মোঃ একরামুল হক মুন্সি আপনি দেশও জাতির জন্য প্রত্যন্ত এলাকা থেকে তথ্য সংগ্রহ করে নির্ভীক সাংবাদিকতায় যে মাইল ফলক স্থাপন করেছেন তা ইতিহাসের পাতায় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। পাশাপাশি হাজারও একরামুল হক মুন্সীর মত অকুতভয় সাংবাদিকদের জন্ম হোক এটাই প্রত্যাশা।
( জুড়ান চন্দ্র মন্ডলঃ লেখক সাহিত্যিকও সাংবাদিক )

     এ জাতীয় আরো খবর..

আমাদের পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম

সংবাদ খুজছেন… নিচের বক্সে শিরোনাম লিখুন