চিতলমারীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে ফাঁসাতে ধর্ষণচেষ্টার মামলা; এলাকায় প্রতিবাদের ঝড়

মো: একরামুল হক মুন্সী:বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার বড়বাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ সরদারের বিরুদ্ধে স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়েরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে এলাকাবাসি। এ ঘটনায় এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। প্রতিবাদকারীরা মামলাটি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি করে সেটি প্রত্যাহারের দাবি জানান।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, মঙ্গলবার(১২ জানুয়ারী) সকাল ১০ টায় উপজেলার বড়গুণী বাজার থেকে একটি বিক্ষোভ সমাবেশ বের হয়। এ সমাবেশে এলাকার শত শত লোক অংশ নেন। তারা উপজেলা পরিষদের সামনে জড়ো হয়ে মামলা প্রত্যাহার ও ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানান।
গত সোমবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে বাগেরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুন্যাল-১ এর আদালতে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।
এ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদের সহযোগী হিসেবে চিতলমারীর বড়গুনী এলাকার আইউব সরদারের ছেলে ছবির সরদারকেও আসামি করা হয়েছে।
এ বিষয়ে প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেওয়া স্থানীয় ওসমান আলী ফকির, নরেশ মÐলসহ অনেকে জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ সরদার দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে। এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন তিনি। তার জনপ্রিয়তাকে ক্ষুন্ন করার জন্য একটি মহল তার নামে এমন একটি ঘৃণ্য মামলা দিয়ে তার সুনাম নষ্ট করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।
এ ব্যাপারে ভিকটিমের পরিবারের সাথে কথা হলে তারা জানান, ন্যায় বিচারের জন্য আমরা আদালতের স্মরণাপন্ন হয়েছি। আশা রাখি আদালত থেকে ন্যায় বিচার পাবো।
এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ সরদার জানান, গত মঙ্গলবার ৫ জানুয়ারী মটর সাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হয়ে আমি গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে রাত সাড়ে ১০টায় চিকিৎসা নেই। আমি এখনও অসুস্থ্য; মামলার খবর হাসপাতালে বসে শুনেছি। এ ঘটনায় আমি মোটেও জড়িত নই । ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি কুচক্রি মহল সামাজিকভাবে হেয় পতিপন্ন করার জন্য এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে । ঘটনাটি সাজানো মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে তিনি দাবি করেন।

     এ জাতীয় আরো খবর..

আমাদের পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম

লাইভ ভিডিটর

35
Live visitors

সংবাদ খুজছেন… নিচের বক্সে শিরোনাম লিখুন