চিতলমারীর হিজলা ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন পেতে চান গাজী আবজাল হোসেন

“মো: একরামুল হক মুন্সী”
বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় আসন্ন ইউপি নির্বাচনে ৩ নং হিজলা ইউনিয়ন পরিষদের নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী গাজী আবজাল হোসেন ইউনিয়নবাসির দোয়া ও সমার্থন চেয়েছেন। তিনি এব্যপারে জননেতা শেখ হেলাল উদ্দীন এমপির শুভদৃষ্টিসহ চিতলমারীর নৌকা পাগল সকল নেতা কর্মীর সহযোগিতা কামনা করেছেন। নৌকা পাগল এই পরিক্ষিত নেতা চিতলমারী উপজেলার ৩ নং হিজলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বারবার নির্বাচিত সভাপতি।

গত ৩ মার্চ (বুধবার) এই নেতার পক্ষে ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক কর্তক স্বাক্ষরিত ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্তির জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো:বাবুল হোসেন খান ও সাধারন সম্পাদক পীযূষ কান্তি রায় বরাবর একটি আবেদন পত্র প্রদান করা হয়েছে।

আবেদনে উল্লেখ করা হয় যে, গাজী আবজাল হোসেন বিগত ২৯ বছর ধরে হিজলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বিগত জামায়াত, বিএনপির আমলে হামলা-মামলার শিকার হয়েছেন। নেতাকর্মীদের মামলার পিছনে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন।তিনি নিঃস্বার্থ রাজনীতিবিদ,আওয়ামী লীগের দুর্দিনেরবন্ধু ও পরোপকারী এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ আজিজ গাজীর সুযোগ্য পুত্র।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুর পর গাজী আবজাল হোসেন হিজলা ইউনিয়নের নেতৃত্বশুণ্য আওয়ামী লীগের দুর্দিনে শক্তহাতে নৌকার হাল ধরেছেন। স্থানীয় জনপ্রিয়তা এবং সামাজিক সংস্কৃতিক অঙ্গনে রয়েছে তার অভূতঃপূর্ব অবদান।

কেবল রাজনীতির কারনেই পৈত্রিকসূত্রে পাওয়া ১০বিঘা জমি বিক্রি করেছেন।তিনি বহু বছরধরে স্থনীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য ইউনিয়নের সামাজিক পর্যায় অগ্রনী ভুমিকা রেখে চলেছেন।বিভিন্ন সময় জাতিয় ও ইউনিয়ন নির্বাচনে দলীয় নেতাকর্মীদের বিজয়েরজন্য বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে নিজেকে প্রমান করতে সক্ষম হয়েছেন। গাজী আবজাল হোসেন কে নৌকার মনোনয়ন দিলে এবং চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে ইউনিয়নবাসি সুখে –শান্তিতে থাকবে এবং হিজলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আরো শক্তি শালী হবে বলে আবেদনে উল্লেখ করা হয়।।

     এ জাতীয় আরো খবর..

আমাদের পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম

সংবাদ খুজছেন… নিচের বক্সে শিরোনাম লিখুন