উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সরেজমিন পরিদর্শন চিতলমারীতে এক সপ্তাহে ৯৭ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত

মোঃ একরামুল হক মুন্সী , চিতলমারী (বাগেরহাট):

বাগেরহাটের চিতলমারীতে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট, অনাবৃষ্টি ও প্রচন্ড গরমের কারণে উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে প্রতিদিন আক্রান্ত নতুন নতুন ডায়রিয়ার রোগী আসছে চিতলমারী সরকারী হাসপাতালে।

মঙ্গলবার এরিপোর্ট প্রকাশ করায় বুধবার সকাল ১১ টার চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ লিটন আলীর উদ্যোগে চিতলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাইরিয়া রোগীদের মধ্যে ১২৫ লিটার বিশুদ্ধ খাবার পানি ও ১৫ প্যাকেট এসএমসি ওরালস্যালাইন বিতরণ করা হয়।  জনগণকে সচেতন করার জন্য হাসপাতাল ফটকে ব্যানারসহ মাইকিং করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চিতলমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু অশোক কুমার বড়াল, উপজেলা স্বাস্থ্যও প,প, কর্মকর্তা ডাঃ মামুন হাসান সহ আরো অনেকে।
উল্লেখ্য মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায়, অন্তরালের সাক্ষাতকালে ডাঃ মামুন হাসান  জানিয়েছিলেন, রোগীদের চিকিৎসা দিতে অনেকটা হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসকরা। ডায়রিয়া ওয়ার্ডে বিছানা সংকুলন না হওয়ায় বাধ্য হয়ে রোগিদের হাসপাতালের মেঝের বারান্দায় শুয়ে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। আক্রান্ত রোগীর বেশির ভাগ শিশু সহ যুবতীমেয়েও বয়াস্ক মহিলা রয়েছেন।
১০ শয্যার ডায়রিয়া ওয়ার্ড থাকলেও সে তুলনায় গত এক সপ্তাহ ধরে ৯৭জন রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে। প্রতিদিন নতুন করে রোগী আসার কারণে হাসপাতালের মেঝেতে ছিট দিতে হচ্ছে। তবে এখন পর্যান্ত ওষুধের ঘাটতি নাই।
তিনি আরো বলেন, বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট, অনাবৃষ্টি ও প্রচন্ড গরমের কারণে ডায়রিয়ার প্রকপ বৃদ্ধি পেয়েছে।

তবে ডায়রিয়ার প্রতিরোধ করতে হলে বেশীবেশী পানীয় জাতের ফল খেতে পরামর্শ দেন  তিনি।

     এ জাতীয় আরো খবর..

আমাদের পত্রিকায় আপনাকে স্বাগতম

সংবাদ খুজছেন… নিচের বক্সে শিরোনাম লিখুন